লেবাননের রাজধানীতে বোমা বিস্ফোরণ

অান্তরর্জাতিক ডেস্ক::লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ব্লম ব্যাংকের সদর দফতরের বাইরে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে ক্ষয়ক্ষতি হলেও হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি বলে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছে। এখনো পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী বা ব্যক্তি এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি।লেবাননের সশস্ত্র শিয়া রাজনৈতিক গোষ্ঠী হিজবুল্লাকে অর্থায়ন ঠেকাতে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলোকে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য যুক্তরাষ্ট্র আইন পাস করার পর থেকে দেশটির ব্যাংকখাতে সমস্যার সৃষ্টি হয়। লেবাননের কেন্দ্রীয় ব্যাংক যুক্তরাষ্ট্রের আরোপিত আইন বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোতে মানতে নির্দেশনা দেয়। হিজবুল্লাহর সঙ্গে সম্পৃক্ত সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের হিসাব বন্ধ করে দেয় যেসব ব্যাংক, ব্লম ব্যাংকও সেগুলোর একটি।বিস্ফোরণ সম্পর্কে হিজবুল্লাহর পক্ষ থেকেও কোনো মন্তব্য আসেনি। লেবাননের রেড ক্রস জানিয়েছে, বিস্ফোরণের ফলে দুই ব্যক্তি সামান্য আহত হয়েছেন।বৈরুতের ভারদুন অঞ্চলে রাত ৮টার দিকে বিস্ফোরণটি ঘটে। স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেলে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনের ভিডিও ফুটেজ সম্প্রচার করা হয়। এতে দেখা যায়, বিস্ফোরণে কংক্রিটের দেয়ালে একটি গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ধারাভাষ্যে বলা হয়েছে, বেশ কয়েকতলা থেকে জানালার কাচ ভেঙে পড়েছে।লেবাননের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বাহিনীর প্রধান ইব্রাহিম বাসবোস বলেন, প্রায় ১৫ কেজি বিস্ফোরক দিয়ে বোমাটি তৈরি করা হয়েছিল।দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নোহাত মাখনুখ বলেন, ‘রাজনৈতিকভাবে পরিষ্কার যে, একমাত্র ব্লম ব্যাংককে লক্ষ করেই হামলাটি চালানো হয়েছে।’ তিনি আরো বলেন, এই হামলার সঙ্গে জঙ্গি-বিদ্রোহী গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) কোনো সম্পর্ক আছে বলে মনে হয় না।আইএস সম্প্রতি বৈরুতে আত্মঘাতী হামলার সংখ্যা বাড়িয়েছে। গেল নভেম্বরে বৈরুতে হিজবুল্লাহর নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৪০ জন নিহত হয়েছিলেন। ওই হামলায় দায় স্বীকার করেছিল আইএস।

Leave a Reply